JPC-Am
রংপুরের মিঠাপুকুরের বালুয়া মাসুমপুর ইউনিয়নে অবস্থিত। ১৯৮৮ সালের বন্যা ভাঙ্গনে যমুনেশ্বরী নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে। খোড়াগাছ ইউনিয়নের মৃত নফল উদ্দিন আমের ব্যবসা করতেন। এবং ঐ এলাকার জমিদার বাড়ীর আম বাগানের আম নিয়ে বিক্রয় করতেন। ঐ আমের মধ্যে একটি আম অত্যন্ত সু-স্বাদু, ঐ আমের চারা নিয়ে নিজের জমিতে লাগান । জমিদার বরেন্দ্র প্রকৃতির শুকনো মওসুমে গাছের গোড়ায় পানি  দেয়ার সুবিধার্থে একটি হাড়ি বসিয়ে পানি সেচের ব্যবস্থা করেন। কিছু দিন পর হাড়িটি  কে বা কারা ভেঙ্গে ফেলে।কালের বিবর্তনের বৃক্ষ ফলবান হয়, অত্র এলাকার গণমান ব্যাক্তির্বগ  সু-স্বাদু আমের কথা জিজ্ঞাস করিলে   নফল উদ্দিন বলেন , ঐ যেই গাছটির হাড়ি ভেঙ্গে ছিল, সে থেকে হাড়িভাঙ্গা গাছের ,নাম করন করা হয় হাড়িভাঙ্গা আম।
আজ ১৮/০৬/২০১৪ দুপুর ১২টার সময় জাতীয় প্রেসক্লাবের দ্বিতীয় তলায় সাংবাদিক সম্মেলন করেন। উক্ত সম্মেলনে আলহাজ্ব আবদুস সালাম সরকার বলেন  রংপুর ক্যান্টনমেন্ট হাড়িভাঙ্গা আমের চারা  রোপন করে বাগান তৈরী করেন।  শুধু মিঠাপুকুরই নয় রংপুরের পীরগজ্ঞ,তারাগজ্ঞ,দিনাজপুরের ফুলবাড়ী,পার্বতীপুর,নবাবগজ্ঞ,হিলি,হাকিমপুর,ঘোড়াঘাটসহ বৃহওর রংপুরের প্রায় সর্বএই ছড়িয়ে পড়েছে হাড়িভাঙ্গা আমের চাষ। ২০১২ সালে কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৈাধুরী হাড়িভাঙ্গা আমের পরির্দশন করেন।আগামী ২০১৬ সালের মধ্যে পাচঁ একর বাগান বাড়ানোর পরিকল্পনা রয়েছে। উপস্থিত সাংবাদিক সম্মেলনে আছেন রংপুরের সংসদ সদস্য জনাব আশিকুর রহমান চাষী আলহাজ্ব আবদুস সালাম সরকার প্রমুখ।

LEAVE A REPLY