পটুয়াখালী, রবিবার,২৪ অক্টোবর,২০২১ঃ
‘বাংলাদেশের যেদিকে তাকাবেন সেদিকেই  ভাঙ্গন।কিন্তু মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা ভাঙ্গনকে একটি সহনীয় পর্যায়ে নিয়ে আসতে হবে।অতীতের সরকারগুলো নদী ভাঙ্গন রোধে তেমন কোন কাজ করেনি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় দুঃখী মানুষের পাশে দাড়াতে আমি বাংলাদেশের আনাচে-কানাচে,একপ্রাপ্ত থেকে আরেক প্রান্তে ছুটে বেড়াই।’
রবিবার (২৪ অক্টোবর) বিকেলে পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলার ধুলিয়ায় তেতুলিয়া নদীর ভাঙ্গন হতে ধুলিয়া লঞ্চঘাট হতে বাকেরগঞ্জ উপজেলার দুর্গাপাশা রক্ষা প্রকল্পের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে পানি সম্পদ মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী কর্নেল (অব.) জাহিদ ফারুক,এমপি এসব কথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, ‘ধুলিয়া-দুর্গাপাশায় ৭১২ কোটি টাকার প্রকল্প পাশ হয়েছে। এটি হলে পরে তীর রক্ষার পাশাপাশি নদী শাসন হবে। স্থানীয় কিছু মানুষ অসাধু ব্যবসায়ীদের যোগসাজোশে নদীর তীর থেকে বালু উঠায়। এরফলে যতো শক্তিশালী তীর রক্ষা বাঁধ আমরা করি না কেন তা টেকসই হবে না।’
পায়রা সেতু নিয়ে বরিশাল সদর-৫ আসনের সংসদ সদস্য জাহিদ ফারুক আরো বলেন, ‘ আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ১৪৪৭ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ‘পায়রা সেতু’র উদ্বোধন করেছেন। এরফলে বরিশাল থেকে পায়রা বন্দর ও সাগরকন্যা কুয়াকাটায় যেতে কোন ফেরির প্রয়োজন হবে না।পায়রা বন্দরের কারনে বরিশালের বিভিন্ন জায়গায় শিল্পায়ন হবে। যুবসমাজের কর্মসংস্থান হবে।’
সভার সভাপতিত্ব করেন পানি উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান প্রকৌশলী মোঃনূরুল ইসলাম সরকার।
এসময় উপস্থিত ছিলেন পটুয়াখালী-২ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব আ.স.ম ফিরোজ এমপি, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য মেজর জেনারেল (অব.) আবদুল হাফিজ মল্লিকসহ সামাজিক ও রাজনৈতিক নেতাকর্মীরা।